অল্প টাকায় ব্যবসা করার উপায় এবং আইডিয়া – Ways to do business for less money 2022

অল্প টাকায় ব্যবসা করার উপায় এবং আইডিয়া 2022: আসলে কি সম্ভব অল্প টাকায় ব্যবসা করা ?  আমার উত্তর হলো হা।  অল্প টাকায় ব্যবসা শুরু করা যায়, শুরু করার জন্য আপনি আপনাকে তৈরি করুন এবং নিজের উপর বিশ্বাস রাখুন। যদি আপনি আপনার উপর আস্থা রাখতে পারেন অবশ্যই এই অল্প টাকায় ব্যবসা অনেক বড় আকার ধারণ করবে। সেটা কিন্তু সম্পূর্ণ আপনার উপর বৃদ্ধি করে।

কিভাবে আপনি পরিচালনা করতেছেন কিভাবে করবেন সেই সবকিছু আপনার উপর, এবং আপনি যদি কঠোরভাবে পরিশ্রম করেন তাহলে অবশ্যই আপনি সফল হবেন।

একটি ব্যবসা শুরু করতে অল্প পরিমাণ অর্থ ব্যবহার করা যেতে পারে। কিন্তু এটা একটু ভিন্ন শোনাচ্ছে. অনেকে অবশ্য অল্প টাকায় ব্যবসা করে কোটিপতি হয়েছেন। অনেকে ব্যবসায় কাজ করতে চান। জীবনে, তিনি একজন সমৃদ্ধ ব্যবসায়ী হবেন।

কিন্তু পর্যাপ্ত পুঁজির অভাবে অনেকেই তাদের স্বপ্ন বাস্তবায়ন করতে পারছেন না। যেকোনো ব্যবসার জন্য একটি উল্লেখযোগ্য পরিমাণ মূলধন প্রয়োজন। এই একটি ধারণা যে আমরা সব আছে. ফলে অনেক স্বপ্নই ভেসে যায়। যেভাবেই হোক, আপনি আপনার স্বপ্ন বুঝতে সক্ষম হবেন। যাইহোক, ব্যবসা পরিচালনার জন্য একটি বড় অঙ্কের অর্থের প্রয়োজন এই ধারণাটি ভুল।

আমরা আজ এটি সম্পর্কে কথা বলতে হবে. অল্প বা বিনা টাকায় ব্যবসা প্রতিষ্ঠা করা সম্ভব। ব্যবসায়িক সাফল্যের জন্য কঠোর পরিশ্রম এবং উত্সর্গের প্রয়োজন। আজ, আমরা দেখব যে অল্প পরিমাণ অর্থ দিয়ে কোন উদ্যোগ প্রতিষ্ঠা করা যায়। চলুন দেখি আমরা এই অল্প টাকা দিয়ে এবং অল্প পুঁজি দিয়ে কিভাবে ব্যবসা গুলো শুরু করতে পারি এবং সেই সম্পর্কে আজকে সব কিছু জানবো এই পোষ্টের মাধ্যমে।

1.আপনি একটা ছোট্ট জুতা তৈরীর কারখানা করতে পারেন (জুতা তৈরীর অল্প টাকায় ব্যবসা)

এই জুতো তৈরির কারখানা টা করার জন্য আপনাকে সামান্য কিছু টাকার প্রয়োজন পড়বে। যেটার মূলধন হবে সর্বোচ্চ 30 হাজার টাকা। এই টাকা দিয়ে আপনি অনেক সুন্দর করে আপনি একটা ছোটখাটো জুতো তৈরির ফ্যাক্টরি কারখানা করে নিতে পারবেন।

যদি আপনি কঠোর পরিশ্রম করেন অবশ্য এটা অনেক বড় ফেক্টরি তে রুপান্তর করতে আপনার বেশি দিন লাগবে না।

আর এই ফ্যাক্টরি শুরু করতে আপনার কি কি প্রয়োজন পড়বে:

  • একটা আপনার ঘর অথবা গোডাউন একটা অথবা দুকান যেকোনো একটি আপনি নিতে পারেন আপনি এই কারখানাটি শুরু করার জন্য।
  • আর আপনার প্রয়োজন পড়বে একটি মেশিন যেটাকে বলে জুতো বা স্যান্ডেল  এর  ডাইস মেশিনটা সাথে আপনি পাবেন ফুল সেট।
  • আপনার প্রয়োজন পড়বে জুতো তৈরীর জন্য কাঁচামাল।

এক পিস জুতা তৈরি করতে কত টাকা খরচ পরে With Video?

জুতা তৈরীর মেশিন এবং কাঁচামাল এর Video

2. দোকান ছাড়া ৫ হাজার টাকায় ব্যবসা করা যায়

বন্ধুরা অল্প টাকায় দোকান ছাড়া ব্যবসা করা যায় মাত্র 1 থেকে 5 10 হাজারের মধ্যে। এখানে এমন বিষয়ে আলোচনা করবো আমরা। এখানের মধ্যে অনেক ব্যবসা করতে পারবেন, অনেক রকম অনেক এখানে আমি উল্লেখ করে পারব না আপনাকে, কি কি ব্যবসা করে করতে পারবেন। 

জাস্ট আমি একটি ব্যবসা নিয়ে এখানে আলোচনা করব সেটি হল কাপড়। আর এই কাপড়ের মধ্যেও অনেক ক্যাটাগরিস আছে যেমন ধরেন প্যান্ট শার্ট গেঞ্জি শাড়ি লুঙ্গি ইত্যাদি কিন্তু আমরা এখানে একটা ব্যবসা করব, সেটি হল গেঞ্জি অথবা শিশুদের কাপড় যেটা শুধু 5000 টাকায় স্টার্ট করা যায়।

এই গেঞ্জি অথবা শিশুদের কাপড়ের ব্যবসা যদি আমরা 5000 টাকায় শুরু করতে চায়। তাহলে আমাদের কি কি প্রয়োজন পড়বে। এবং আমাদের কোন কোন দিক আমাদের খেয়াল করতে হবে সেটাই আমরা এখানে তুলে ধরব এবং আপনার কি কি প্রয়োজন পড়বে।

  • প্রথম আপনি আপনার এরিয়াতে আপনার আশেপাশে লোকজনের চাহিদাটা দেখবেন কোনো কম্পিটিশন আছে কিনা গেঞ্জি অথবা বাচ্চাদের কাপড়ের উপরে।
  • তারপর আপনি আপনার পছন্দ মত আবেগ গেঞ্জি অথবা বাচ্চাদের কাপড় নিয়ে ব্যবসা শুরু করবেন।
  • তারপর আপনাকে খুঁজতে হবে পাইকারি মার্কেট, যেখান থেকে আপনি অল্প টাকায় এবং পাইকারিতে মাল গুলো কিনতে পারেন। যেমন ধরেন চিটাগাংয়ের বাজারে রিয়াজউদ্দিন বাজার আর ঢাকাতে কালিগঞ্জ আমি দুইটা উল্লেখ করে দিলাম। বাকিটা আপনারা আপনার শহরের কোন জায়গায় আপনারা পাবেন সস্তায় সেখান থেকে এনে আপনার এলাকায় আপনারা বিক্রি করতে পারবেন খুব সহজে।

অল্প টাকায় দোকান ছাড়া ব্যবসা করার Video

3. অল্প টাকায় কফি শপ ব্যবসা করা যায়

কফি একটি জনপ্রিয় পানীয়। আমরা সবাই কফি উপভোগ করি। যখন আমরা কারও সাথে দেখা করার কথা ভাবি তখন প্রথম যে জায়গাটি মনে আসে তা হল একটি কফি শপ। কফি খেতে খেতে গল্প চলতে থাকে বেশ কিছুক্ষণ। কফি শপটি বর্তমানে একটি জনপ্রিয় হ্যাঙ্গআউট।

Read More: ছোট ব্যবসা শুরু করুন গ্রাম অথবা শহর থেকে.

তদুপরি, কফি পান শরীরের ক্লান্তি দূর করে, তাই কর্মজীবীরাও এটি উপভোগ করেন। তাই বাংলাদেশের মত একটি উন্নয়নশীল এবং জনবহুল দেশে একটি ভাল অবস্থানে একটি ভাল কফি শপ থাকা একটি দুর্দান্ত ধারণা। কম বাজেটে ব্যবসা পরিচালনা করার জন্য একটি কফি শপ একটি চমৎকার জায়গা।

এই কফি শপ ব্যবসা করতে যা প্রয়োজন হবে আপনার:

  • একটি কফি মেকার মেশিন যেটার দাম মাত্র 14 থেকে 15 হাজার টাকা।
  • কফির কাপ যেটা দিয়ে আপনারা কাস্টমারদের কে কফি দেবেন, এইটা আবার ওয়ান টাইম গ্লাস হতে পারে।
  • কফি বানানোর জন্য কাঁচামাল লাগবে, যেমন: কফি, চিনি, দুধ, বরফ এইগুলি।
  • দোকান অথবা আপনার ভ্রামমান শপের কিছুটা ডেকোরেশন করে নিতে হবে।
  • আপনার দোকান অনুযায়ী চেয়ার এবং টেবিল লাগবে যেখানে কাস্টমার গুলো বসবে।

4. রাস্তার খাবারের অল্প টাকায় ব্যবসা – Street food business

বাংলাদেশের মতো একটি উন্নয়নশীল এবং জনবহুল দেশে স্ট্রিট ফুড (রাস্তার খাবারের ব্যবসা) একটি লাভজনক উদ্যোগ হতে পারে। তথাকথিত রেস্তোরাঁয় খাওয়ার মতো আর্থিক সংস্থান নেই এদেশের অনেকের। তারা রাস্তার এই খাবারের ট্রাকের উপর নির্ভর করে। তবে এই শিল্পে খাবার অবশ্যই উন্নতমানের হতে হবে।

রাস্তার খাবারের ব্যবসার আইডিয়া কম পুঁজির ছোট ব্যবসা 2022 Video

Read More: starting a successful business 10 High Profit Unique Business Ideas

5.আইসক্রিম পার্লার দোকান বা ব্যবসা

আইসক্রিম পার্লার: আজকাল, সামান্য নগদ দিয়ে ব্যবসা শুরু করার সেরা সময় সকাল। আইসক্রিম পার্লার এমনই একটি ক্ষুদ্র উদ্যোগ। আপনি সঠিকভাবে যে পড়া. মানুষ আজকাল কাজ, পড়া এবং শোনা নিয়ে ব্যস্ত। ফলস্বরূপ, লোকেরা খোলা মেলায় বসতে পছন্দ করে, যেমন আইসক্রিম পার্লার, যেখানে তারা অল্প সময়ের মধ্যে তাদের মাথা এবং মনকে সতেজ করতে পারে।

আপনি অন্যদের যে সহায়তা প্রদান করেন তাতে আপনাকে কেবল আরও নির্বাচনী হতে হবে। এমন জায়গায় স্কুল-কলেজ, মার্কেট বা ছোট দোকান আইসক্রিম পার্লার খোলার জন্য আদর্শ হবে। মনে রাখবেন, রেস্তোরাঁর মতো, অল্প কিছু লোকের আসার এবং বসার জন্য পর্যাপ্ত জায়গা থাকা উচিত।

তারপর আপনার দোকানে সুস্বাদু আইসক্রিম নিয়ে আসুন এবং আপনার ক্লায়েন্টদের খাওয়ান। যে লোকেরা আপনার পার্লারে এসে বোস এবং আইসক্রিম খেতে উপভোগ করে তারা বারবার আপনার দোকানে ফিরে আসবে।

একটি আইসক্রিম পার্লার শুরু করার জন্য, আপনার যা প্রয়োজন তা হল একটি উপযুক্ত স্থানে একটি দোকান এবং আইসক্রিম সংরক্ষণ করার জন্য একটি রেফ্রিজারেটর৷ তা ছাড়া, লোকেদের বসার জন্য টেবিল এবং চেয়ার বজায় রাখতে হবে। এগুলো পেতে আপনাকে অনেক টাকা খরচ করতে হবে না এবং আপনি অল্প বিনিয়োগে এই ব্যবসা শুরু করতে পারেন।

6.জেরক্স এবং প্রিন্টিং/ফটোকপির দোকান

জেরক্স এবং প্রিন্টিং ফটোকপির দোকান: আপনি যদি ভাবছেন যে আপনি খুব কম টাকা দিয়ে কি ধরনের ব্যবসা শুরু করতে পারেন, তাহলে একটি জেরক্স এবং প্রিন্টিং স্টোর শুরু করার কথা বিবেচনা করুন। মানুষ আজকাল ছোট থেকে বড় চাকরি সব কিছুর জন্য জেরক্স এবং মুদ্রণের দোকান বেছে নেয়।

স্কুলছাত্র এবং অফিসের কর্মীদের বিভিন্ন প্রকল্প রয়েছে এবং তারা তাদের নিজস্ব প্রিন্ট করতে দোকানে যায়। সুতরাং, আপনি এই ক্ষুদ্র ব্যবসার ধারণা দিয়ে অনেক অর্থ উপার্জন করতে পারেন। আপনি আপনার দোকানে যারা কাজ করেন তাদের জন্য বায়োডাটা (জীবনবৃত্তান্ত) তৈরি করে অর্থ উপার্জন করতে পারেন।

এই শিল্পে শুরু করার জন্য আপনার অল্প পরিমাণ অর্থের প্রয়োজন হবে। একটি ছোট দোকান, একটি কম্পিউটার, একটি প্রিন্টার এবং একটি জেরক্স মেশিন সবই প্রয়োজন৷ গ্রাহকরা আপনার দোকানে যেতে থাকবে, এবং আপনি নিজের প্রচেষ্টা থেকে অর্থ উপার্জন করতে সক্ষম হবেন। এর ফলে আপনার কোন অতিরিক্ত খরচ হবে না।

Conclusion

বন্ধুরা এই অল্প টাকায় ব্যবসা করার অনেক উপায় আমি এই পোস্টের মধ্যে বলছি। এবং কিভাবে করবেন সেটিও দেখিয়েছি আশা করি আপনাদের অনেক অনেক ভালো লাগছে। এবং লাগবে আর আপনাদেরকে অনেক ধন্যবাদ আমাদের ওয়েবসাইটটিতে আসার জন্য এবং আপনাদের কাছে একটাই অনুরোধ থাকবে যাতে করে আপনারা শেয়ার করে দেন এ পোস্ট আপনাদের টাইমলাইনে। যাতে করে আপনাদের আপনার বন্ধুরা এই পোস্টটি দেখতে পায় এবং তারা উপকৃত হয় সেজন্যে।

Shaer With Love

Leave a Comment